‘গুড গভর্নেন্স বাস্তবায়ন করতে দরকার এনআইএস’

0
66

পিভিউ ডেস্ক :   গুড গভর্নেন্স বাস্তবায়ন করতে হলে ন্যাশনাল ইউটিলিটি স্ট্র্যাটিজি (এনআইএস) বা জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বাস্তবায়ন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, মানুষের চারিত্রিক ও নৈতিক বিষয় উন্নত করতে হবে। এনআইএস বাস্তবায়নের মাধ্যমে তা সম্ভব। আমার অফিস সকাল ৯টায়। আমি যদি কোনো কারণ ছাড়া ৫মিনিট দেরি করি বা বিকেল ৫টার আগে অফিস থেকে চলে যাই তাহলে আমি ১৬ কোটি মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করলাম। দায়িত্বে অবহেলা করলে মাফ পাওয়ার সুযোগ নেই। এটি আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রীপরিষদ সচিব বলেন, সারা পৃথিবীতে যখন করাপশন কাটডাউন করা যাচ্ছে না, জেল-জরিমানা দিয়ে করাপশন কাটডাউন করা যাচ্ছে না। ইউএন ওডিসি এটার উদাহরণ হিসেবে জাপানের কথা নিয়ে আসলো। তারা প্রেসক্রিপশন হিসেবে বললো- জেল-জরিমানা থাকবে। তার পাশাপাশি মানুষের মোরালিটি, আচার-ব্যবহার, রিলিজিয়াস বিধি-বিধান সামনে নিয়ে আসতে হবে।

মন্ত্রীপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আমাদের গুড ইকোনমি এনশিওর করতে গেলে ডিপ সী তে যেতে হবে। চট্টগ্রাম মোস্ট ইম্পর্টেন্ট দেশের ইকোনমির জন্য। শুধু বে-টার্মিনাল করলেও কাজ হবে না।

তিনি বলেন, বাজেট ও দেশ চালাতে গেলে ইনকাম ট্যাক্স ও কাস্টমসকে ব্যাকআপ করতে হবে। যে যে ডিপার্টমেন্টে চাকরি করি না কেন কাজ করতে হবে।

মন্ত্রীপরিষদ সচিব চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) বাস্তবায়নাধীন জলাবদ্ধতা প্রকল্প, এলিভেটেড এক্সপ্রেস ওয়ের অগ্রগতি জানতে চান সিডিএ প্রতিনিধির কাছে। চট্টগ্রাম রেঞ্জ ও মহানগরের আইনশৃঙ্খলা সম্পর্কে জানতে চান সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে। এছাড়া কর কমিশনার, বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে খোঁজ নেন তিনি।

বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার ও চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান।

মতবিনিময় সভায় অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) নুরুল আলম নিজামীসহ বিভাগীয়, জেলা প্রশাসন ও সরকারি বিভিন্ন সংস্থার প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here