সামিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে হারুন

0
289

পিভিউ ডেস্ক :   রাজধানীর ওয়ারী থানার বনগ্রামে ছয় বছরের শিশু সামিয়া আফরিন সায়মাকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে মামলার প্রধান আসামি হারুন অর রশিদ।

হারুন স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হওয়ায় সোমবার তাকে আদালতে হাজির করে জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মোহাম্মদ আর্জুন।

আবেদন মঞ্জুর করে মহানগর হাকিম সারাফুজ্জামান আনছারী তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক।

শুক্রবার রাতে ওয়ারী এলাকার ৯ তলা ভবনের একটি বাসা থেকে সামিয়ার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সামিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় শনিবার তার বাবা আব্দুস সালাম ওয়ারী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। রবিবার কুমিল্লার ডাবরডাঙা এলাকা থেকে হারুনকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ।

ময়নাতদন্ত শেষে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান সোহেল মাহমুদ জানান, শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। তারা শিশুটির শরীরে ধর্ষণের আলামত পেয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here