মসজিদ ছাড়িয়ে তপ্ত সড়কেও নামাজ আদায়

0
346

পিভিউ ডেস্ক :    সাড়ে তিনশ’ বছরের প্রাচীন আন্দরকিল্লার শাহি জামে মসজিদে পবিত্র জুমাতুল বিদায় দূরদূরান্ত থেকে এসেছেন মুসল্লিরা। বাবার হাত শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে ছেলের কাঁধে ভর দিয়ে আসেন অশীতিপর বৃদ্ধও। মসজিদের ভেতর ও মাঠে জায়গা না পেয়ে অনেকে তপ্ত সড়কেও নামাজ আদায় করেন।

বাসা-বাড়ি থেকে আসার পথে বেশিরভাগ মুসল্লি জায়নামাজ সঙ্গে আনলেও পথচারী এবং নগরে ঈদের কেনাকাটা করতে আসা মুসল্লিরা ১০ টাকায় ‘ওয়ানটাইম জায়নামাজ’ কিনে নামাজ আদায় করেন। কাগজের পাইকারি বাজার আন্দরকিল্লার অনেকে রিম হিসেবে ক্র্যাফট পেপার কিনে প্রতিটি মুসল্লিদের কাছে বিক্রি করেন ১০ টাকায়। এ ছাড়া অনেকে ব্যানার, পোস্টার, এক পিঠ ছাপানো আর্ট কার্ড দেন মুসল্লিদের। বিপুলসংখ্যক মুসল্লির ওজুর জন্য চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বেশ কিছু রিকশাভ্যান ছিল সড়কে।

খুতবায় রমজানের তাৎপর্য, শবে কদর, জাকাত, ফিতরা, তাওবা, রমজানের বিদায়লগ্নে করণীয় ইত্যাদি বিষয়ে কোরআন-হাদিসের আলোকে আলোচনা করেন খতিব আল্লামা সাইয়্যেদ মুহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন তাহের জাবেরি আল মাদানি।

জানা গেছে, ১৬৬৭ খ্রিষ্টাব্দে মোগল সেনাপতি সুবেদার শায়েস্তা খাঁর ছেলে বুজুর্গ উমেদ খাঁ শাহি জামে মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন। ১৭৬১-১৮৫৫ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত ৯৪ বছর ব্রিটিশ শাসকরা মসজিদটিকে গোলাবারুদের গুদাম বানিয়ে রেখেছিল। এরপর চট্টগ্রামের ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা মসজিদটি পুনরুদ্ধার করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here